July 19, 2024, 9:18 am
শিরোনাম
“ছত্র” বাঘায় একটি বিদেশি পিস্তলসহ ২ জন কুখ্যাত অস্ত্র ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব ভূমি সেবায় বিশেষ অবদানে কবি কাজী নজরুল ইসলাম গোল্ডেন এ্যাওয়ার্ড পেল মো: এরফান উদ্দীন জা‌মিয়া দারুল কুরআন, সি‌লেটের গিনেস রেকর্ডের অধিকারী অ‌লি খানকে বিশাল সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত সিরাজগঞ্জ তাড়াশে কাপড়ে মোড়ানো এক নবজাতকের মরদেহ উদ্ধার প্রবাসীরা আমাদের শক্তি, তারাই দেশের অর্থনীতির অন্যতম চাবিকাঠি-মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী মাননীয় রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিনের সাথে এনআরবি ওয়ার্ল্ড প্রতিনিধি দলের সৌজন্য সাক্ষাৎ বিসিএ ফাউন্ডেশন ইউকে উদ্যোগে সিলেট বিভাগে বন্যাকবলিতদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ তরুণ নারী উদ্যোক্তাদের জন্য অনুপ্রেরণা এবং সহযোগিতার এক অনন্য সভা অনুষ্ঠিত বোরহানউদ্দিনে রথযাত্রা উদযাপন

বাঁশখালীর নাটকীয় সংবাদ সম্মেলনকে বয়কটের ডাক

নিজস্ব প্রতিবেদন

ইউপি সদস্য আনোয়ারুল ইসলামই সাংবাদিক গাজী গোফরানের বড় ভাই মোঃ বোরহান উদ্দিনের উপর হামলা করেছে-তা তার নিজের স্বীকারোক্তি ও অনুসন্ধানে প্রমাণিত হওয়ার পরও ইউপি সদস্য কর্তৃক আগামীকালের নাটকীয় মানববন্ধনের তীব্র বিরোধিতা করছে চট্টগ্রাম সাংবাদিক সংস্থা-চসাস। সংগঠনটির সভাপতি সৈয়দ দিদার আশরাফী ও সাধারণ সম্পাদক ওসমান এহতেসাম স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
চসাস নেতৃবৃন্দ বলেন, নিজেই হামলাকারী হয়ে প্রকৃত ঘটনাকে আড়াল করতে মানববন্ধনের ডাক নাটকীয়তার সামিল। নিন্দার সাথে আমরা এর তীব্র বিরোধিতা করছি। আমাদের প্রত্যাশা, চট্টগ্রামে কর্মরত সকল সাংবাদিক প্রকৃত ঘটনা অনুসন্ধান করে উক্ত সাজানো মানববন্ধনকে বয়কট করবে।
তারা বলেন, একজন সাংবাদিক হিসেবে গাজী গোফরান অনিয়মের সংবাদ জনসম্মুখে তুলে ধরবেন এটি তার পেশাগত কর্তব্য। কিন্তু এই সংবাদ প্রকাশের জের ধরে তার পরিবারের উপর হামলা একটি জঘন্যতম অপরাধ। এমনকি এর মধ্য দিয়ে ওই সাংবাদিকের স্বাধীনতা হরণ করা হয়েছে।
চট্টগ্রামে কর্মরত সকল সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে চসাস নেতৃবৃন্দ বলেন, সম্মানিত প্রিয় সাংবাদিকবৃন্দ, আমাদের অবস্থান অনিয়মের বিরুদ্ধে। গণমাধ্যমের সহকর্মী হিসেবে আপনাদের সহযোগিতা আমরা সবসময় প্রত্যাশা করি। এখন আমাদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার বিকল্প নেই। তাই অনুসন্ধান করে আপনারাও সত্য ঘটনাটি কি তা বের করুন।
অনুসন্ধান করে ঘটনার সত্যতা পেলে, গত ২০ জুন চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ করে চট্টগ্রাম সাংবাদিক সংস্থা। শুধু তাই নয়, ইউপি সদস্যের পক্ষে যে কয়টি আইপিটিভি সংবাদ প্রকাশ করেছিল, পরবর্তীতে অনুসন্ধান করে ইউপি সদস্যের পক্ষে ঘটনার সত্যতা না পেয়ে তারা তাদের ওয়েবসাইট ও সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সকল ধরনের সংবাদ প্রত্যাহার করে নেয়।
জনপ্রতিনিধি যেখানে সাংবাদিকদের পেশাগত কাজে সহযোগিতা করবেন, তা না করে উল্টো সংবাদ প্রকাশের জের ধরে হামলা করে ফৌজদারি অপরাধ সংগঠিত করেছেন। এতে ওই সাংবাদিক ও তার পরিবারের স্বাধীনতা ক্ষুন্ন হয়েছে। চসাস সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ওই সাংবাদিক ও তার পরিবারের ওপর হামলার সঙ্গে জড়িত ওই ইউপি সদস্য ও তার সহযোগী সন্ত্রাসীদের তদন্তের মাধ্যমে চিহ্নিত করে শাস্তি নিশ্চিত ও ভুক্তভোগী ওই সাংবাদিক ও তার পরিবারের সদস্যদের কাছে আনুষ্ঠানিক ক্ষমা প্রার্থনার দাবি জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Our Like Page